বেইস কেয়ার ফাউন্ডেশন

বেইস কেয়ার ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ একটি উন্নত ও আধুনিক স্মার্ট অনলাইন ভিত্তিক প্রযুক্তিগত স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠানটি নিজেদের উদ্ভাবনকৃত মোবাইল এ্যাপসের মাধ্যমে নিবন্ধনকৃত রোগীর সকল প্রয়োজনীয় তথ্য নিবন্ধকরণ প্রক্রিয়ায় যথাযথভাবে তথ্য সংরক্ষণ এবং পর্যালোচনা করে তাত্ক্ষণিকভাবে রোগীর চাহিদামত মানসম্পন্ন স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করে থাকে।

অভিন্ন এক ধারাবাহিক প্রক্রিয়া বা সরাসরি যোগাযোগ বজায় রেখে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ও রোগীর মধ্যে ‍ভিডিও কলের মাধ্যমে বা একান্ত গোপনীয়ভাবে রোগ নির্ণয়ের বিস্তারিত আলাপচারিতায় নিয়োজিত থাকেন। 

একটি চলমান নেটওয়ার্কের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক মানের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক, সংশ্লিষ্ট সকল সদস্য ও সমর্থকদের মধ্যে তৈরি হয় সম্পর্কের এক সেতুবন্ধন। আমাদের এই প্রযুক্তিগত প্ল্যাটফর্মে চাহিদা ভিত্তিক আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের লক্ষ্যে নিজস্ব সার্ভার পদ্ধতি চালু রয়েছে যা দ্বারা নিবন্ধনকৃত সকলের স্বাস্থ্যসেবার তথ্য পর্যবেক্ষণ এবং সংরক্ষিত হয়।

 

 
আমরা নিজেদের উদ্ভাবনকৃত মোবাইল এ্যাপসের মাধ্যমে নিবন্ধনকৃত রোগীর প্রাথমিকভাবে তাত্ক্ষণিক স্বাস্থ্য পরীক্ষা করি (যেমন- ব্লাড প্রেসার মাপা, পাল্স রেট জানা, শরীরের তাপমাত্রা, ওজন ও উচ্চতা মাপা, প্রসাব পরীক্ষা, রক্তে শর্করা-হিমোগ্লোবিন এবং কোলেস্টরালের পরিমাণ নির্ণয়, অক্সিজেন পরিমাণ জানা ইত্যাদি) এবং এ সকল তথ্য সংরক্ষিত থাকে যা ব্যক্তিগত প্রোফাইলের অধীনে মোবাইলের মাধ্যমে খুব সহজেই প্রবেশ করতে পারে। এছাড়াও, নিবন্ধনকৃত রোগী বা এর বাইরেও যেকোন ব্যাক্তি বা সুবিধাভোগীকে-যেকোন সময় ডাক্তারের সাথে দেখা করা ও হাসপাতালে ভর্তি করা ইত্যাদির মতো ঝামেলা এড়াতে প্রয়োজনীয় সেবা পেতে সহায়তা দেয়।

আমাদের এই প্ল্যাটফর্মটি সর্বজনীনভাবে সকলের প্রবেশাধিকার এবং ব্যবহার উপযোগীভাবে নকশা করা হয়েছে যেন আপনি যেখানেই থাকুন, বা আপনার স্বাস্থ্য নিয়ে উদ্বেগ যাই থাকুক না কেন আমরা আপনাকে প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্যসেবা পেতে অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে বা চাহিদামত সেবা তাত্ক্ষণিকভাবে সহায়তা করি।

বেইস কেয়ার ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ স্বাস্থ্যসেবা খাতে এক যুগান্তকারী প্রযুক্তিগত উদ্ভাবন যার সেবা প্রদানের পরিধি ব্যাপকভাবে বিস্তার লাভ করছে।

বেইস কেয়ার ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন কর্মকান্ড তথা আধুনিক, তাত্ক্ষণিক এবং মানসম্মত স্বাস্থ্যসেবা সহায়তা পেতে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

আমাদের বিশেষত্ব

  • মানসম্মত স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের জন্য নিজস্ব সার্ভার পদ্ধতি এবং মোবাইল এ্যাপ চালু রয়েছে।
  • প্রত্যেক রোগীর জন্য স্বতন্ত্র প্রোফাইল তৈরি করে সমস্ত তথ্য সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা নিশ্চিতের মাধ্যমে স্বাস্থ্যসেবার পথকে সহজতর পদ্ধতি চালু রয়েছে। 
  • আমদের রয়েছে রোগ বা স্বাস্থ্য সম্পর্কিত প্রাথমিক প্রশ্নাবলী চয়ন বা পর্যবেক্ষণ ব্যবস্থা যার মাধ্যমে রোগের প্রাথমিক তথ্যের লব্ধ জ্ঞানের মাধ্যমে প্রতিরোধ এবং প্রতিকারমূলক পদক্ষেপ গ্রহনের মাধ্যমে মানসম্মত স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে ব্যাক্তি জীবনে সুস্থ রেখে সুন্দরভাবে বাঁচাতে সহায়তা করে। 
  •  আন্তর্জাতিক মানের বিশেষজ্ঞ ও অভিজ্ঞসম্পন্ন চিকিৎসকবৃন্দ, অভিজ্ঞ কর্মী, টীম-এর স্বতন্ত্র প্রোফাইল পদ্ধতি। 
  • আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের লক্ষ্যে সকল সহযোগী প্রতিষ্ঠানসমূহের সঙ্গে ভারসাম্য বজায় রাখতে সক্ষম।
  • সার্বক্ষণিক মানসম্মত স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।
  • বিভিন্ন স্বাস্থ্য বিষয়ক গবেষণা ও প্রশিক্ষণ পরিচালনা, কর্মসূচি প্রনয়ণ ও বাস্তবায়নে উদ্যোগী।

হাসপাতাল সেবা কার্যক্রম

বেইস কেয়ার ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ সর্বদা উন্নত বহিরাগত-রোগী পরিষেবা সম্পর্কে উদ্বিগ্ন। বহিরাগত-রোগী পরিষেবা একটি আদর্শ হাসপাতালের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উপাদানগুলির মধ্যে একটি গঠন করে। ফাউন্ডেশনের হাসপাতাল এবং মেডিকেল সেন্টার (গ্রামীণ ক্লিনিক) দেশের বিভিন্ন স্থানে অবস্থিত। যে রোগীরা অর্থ প্রদান করতে অক্ষম তাদের বিনামূল্যে সেবা প্রদান করা হয় এবং পরিষেবার জন্য অর্থ প্রদানের অক্ষমতার কারণে যেন কেউ মুখ ফিরিয়ে না নেই। ক্লিনিক /হাসপাতালটি বিশাল জায়গা দখল করে আছে। রোগী এবং তাদের সাথে অংশগ্রহণকারীদের থাকার জন্য আমাদের সঠিক বায়ুচলাচল, আলো এবং পর্যাপ্ত স্থান রয়েছে। রোগীকে রোগ নির্ণয়, নিরাময়মূলক এবং প্রতিরোধমূলক সেবা প্রদান করে।

সমন্বিত তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তি ব্যবস্থাপনা পদ্ধতি

বেইস কেয়ার ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ ডাটাবেসে প্রোফাইল করার মত তথ্য ব্যবস্থাপনা পদ্ধতি প্রবর্তন করে। যাতে পরিষেবা সরবরাহের উন্নতি আরও ভাল তথ্য প্রদানের জন্য মূল্যবান রোগীর তথ্য বজায় রাখা যায় এর কার্যক্রমগুলিকে একটি মসৃণ এবং দক্ষভাবে চালানো নিশ্চিত করা যায়। এটি কর্মপ্রবাহ, রোগীর প্রবাহ এবং বিভিন্ন ক্রিয়াকলাপের মানসম্মতকরণকে অগ্রাধিকার দেয়, যা প্রতিষ্ঠানের সামগ্রিক কর্মক্ষমতা বাড়ায়। আইসিটি প্রোগ্রামগুলি দূরবর্তীভাবে সরবরাহ করে যত্ন, যোগাযোগ এবং চিকিৎসা তথ্যের আদান-প্রদান সক্ষম করতে প্রযুক্তি ব্যবহার করে (যেমন-টেলিমেডিসিন, কল সেন্টার, সেল ফোন প্রযুক্তি, বায়োমেট্রিক সিস্টেম, ইত্যাদি)।

স্বাস্থ্য বীমা

সম্প্রদায় বা ক্ষুদ্র-বীমা হল ব্যক্তিগত স্বাস্থ্য বীমার প্রকার যা বিশেষভাবে নিম্ন আয়ের লোকদের লক্ষ্য করে। তারা নিয়মিত প্রিমিয়াম পেমেন্টের বিনিময়ে স্বল্প-আয়ের লোকদের নির্দিষ্ট বিপদ থেকে সুরক্ষা প্রদান করে, সম্ভাব্যতা এবং ঝুঁকির খরচের সমানুপাতিক।বেইস কেয়ার ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ হল একটি অলাভজনক প্রতিষ্ঠান যা বাংলাদেশে দরিদ্র, সুবিধাবঞ্চিত এবং প্রান্তিক মানুষের জন্য স্বাস্থ্যসেবাকে সাশ্রয়ী এবং প্রবেশযোগ্য করে তোলার জন্য নিবেদিত। প্রোগ্রামটি প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা সুবিধাগুলোকে মসৃণ এবং কার্যকর ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করার জন্য ডিজাইন করা হয়েছে যাতে সমস্ত সম্পর্কিত পরিষেবাগুলি দক্ষভাবে সরবরাহ করা যায়।

বেইস কেয়ার ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ কর্তৃক গৃহীত এবং প্রকল্পগুলো বাস্তবায়িত করার জন্যে বিভিন্ন হাসপাতাল, ক্লিনিক, অর্গানাইজেশন জড়িত।

  • মেম্বারশীপ/ একের ভিতর সব/প্যাকেজ বা প্ল্যান
  • ২৪/৭ টেলিমেডিসিন সার্ভিস
  • ঔষধ সরবরাহ
  • ক্যাশবেক/ডিসকাউন্ট অফার
  • মেডিকেল রিপোর্ট ডেলিভারি
  • নিয়মিত বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সাথে দেখা করা
  • বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সাথে ভিডিও কলের মাধ্যমে কথা বলা
  • নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও পর্যবেক্ষণ করা
Background
01

Chattogram Zone

02

Dhaka Zone

03

Khulna Zone

04

Barisal Zone

05

Sylhet Zone

06

Rajshahi Zone

07

Rangpur Zone